টমেটোর ফেসপ্যাক দিয়ে ত্বককে রাতারাতি ফর্সা করার উপায়

বন্ধুরা আজ আমি আপনাদের সাথে টমেটোর তৈরি কয়েকটি ফেসপ্যাক শেয়ার করছি

যা মাত্র ১ বার ব্যবহারে আপনার ত্বক ফর্সা হওয়ার সাথে সাথে হয়ে যাবে কাচের মতো চকককে ফর্সা স্বচ্ছ ও উজ্জ্বল।

আর তাছাড়া আপনার ত্বকথেকে দাগ ছোপকে দূর করে দিয়ে ত্বককে মসৃণ ও সুস্থ করে তুলবে।

তাই বন্ধুরা, যদি আপনি ফর্সা উজ্জ্বল এবং গ্লোয়িং ও ক্লিন ত্বক পেতে চান তাহলে

এই ফেসপ্যাক গুলোকে একবার হলেও ব্যবহার করে দেখবেন।

বন্ধুরা চলুন তাহলে দেখেনি কিভাবে এই ফেসপ্যাক গুলোকে তৈরি করবেন ।

টমেটো এবং অলিভ অয়েলের ফেসপ্যাকঃ

টমেটোর এই ফেসপ্যাকটি শুষ্ক ত্বকের জন্য অত্যন্ত কার্যকরী।

একটি অর্ধেক পাকা টমেটোর রস 1 চা চামচ অলিভ অয়েল । ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে তৈরি করে নিন  টমেটোর ফেসপ্যাক টি।

এরপর তাতে এক চা-চামচ চিনি যোগ করুন।

 

পরিষ্কার মুখে চিনি সমেত মিশ্রণটি লাগিয়ে চিনি মিহি হয়ে যাওয়া পর্যন্ত ভালোভাবে স্ক্রাব করুন।

15 থেকে 20 মিনিট মিশ্রণটি ভালোভাবে শুকানোর জন্য সময় দিন।

মিশ্রণ টি সম্পূর্ণ শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম জলে মুখ ধুয়ে নিন।

  উপকারিতাঃ

টমেটোর এই ফেসপ্যাকটি আপনার ত্বকের অতিরিক্ত শুষ্কতা দূর করে ত্বককে স্বাভাবিক ভাবে আদ্র রাখবে।

ত্বকের বিভিন্ন ধরনের দাগ দূর করতে টমেটোর ফেসপ্যাক টি অত্যন্ত কার্যকরী।

ত্বক কে কোমল এবং মসৃণ করে তুলবে।

ত্বককে শুষ্ক হয়ে ফেটে যাওয়া থেকে রক্ষা করবে।

 

টমেটো এবং চন্দনের গুড়ার ফেসপ্যাকঃ

দ্রুত সময়ে ত্বকের সকল দাগ দূর করতে এবং ত্বক কে গভীর থেকে উজ্জ্বল এবং ফর্সা করতে  টমেটোর এই ফেসপ্যাকটি অত্যন্ত কার্যকরী।

 

একটি অর্ধেক পাকা টমেটোর রস, 2 চা চামচ চন্দনের গুঁড়া এবং আধা চা-চামচ কাঁচা হলুদের গুঁড়া ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে তৈরি করে নিন টমেটোর ফেসপ্যাক।

পরিষ্কার মুখে ভালোভাবে স্ক্রাব করে মিশ্রণটি লাগিয়ে নিন।

5 থেকে 7 মিনিট ভালভাবে মাসাজ করুন।

25 থেকে 30 মিনিট মিশ্রণটি ভালোভাবে শুকানোর সময় দিয়ে তারপর ঠাণ্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন।

  উপকারিতাঃ

ত্বকের সমস্ত দাগ দ্রুত সময়ে দূর করবে।

চোখের নিচের কালো দাগ দূর করবে।

ত্বক কে স্থায়ীভাবে উজ্জ্বল এবং ফর্সা করে তুলবে।

ত্বক কে কোমল এবং মসৃণ করে তুলবে।

ব্রণের উপদ্রব কমাবে।

টমেটো এবং ওটমিলের ফেসপ্যাকঃ

একটি অর্ধেক পাকা টমেটোর রস। একটা চামচ ওটা মিলে গোড়া এবং 1 চা চামচ টক দই ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে তৈরি করে নিন টমেটোর ফেসপ্যাক টি।

 

ত্বকে ব্যবহারের জন্য উপরে বর্ণিত ফেসপ্যাক গুলোর ব্যবহার পদ্ধতি অনুসরণ করুন।

  উপকারিতাঃ

দ্রুত সময়ে ত্বকের দাগ  দূর করবে।

ব্ল্যাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করতে ফেসপ্যাকটি অত্যন্ত কার্যকরী।

ত্বকের লোমকূপের শক্তি যোগাবে।

ব্রণের উপদ্রব কমাবে।

ত্বক কে কোমল মসৃণ এবং আকর্ষণীয় করে তুলবে।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ

টমেটোর ফেসপ্যাকে ব্যবহৃত কোন উপকরণ আপনার ত্বকের জন্য এলার্জিক হলে সেটি ব্যবহার থেকে সম্পূর্ণভাবে বিরত থাকুন।

টমেটোর ফেসপ্যাক ত্বকে লাগিয়ে রোদে গরম স্থানে ও ধুলাবালি যুক্ত স্থানে যাবেন না।

দ্রুত সময়ে ত্বকের দাগ দূর করতে ত্বক কে আকর্ষণীয় এবং উজ্জ্বল করতে সপ্তাহে অন্তত দু’বার টমেটোর ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন।

অতিরিক্ত শুষ্ক ত্বকে টমেটোর ফেসপ্যাক ব্যবহারের পর  ত্বক ময়েশ্চারাইজ করে নিন।

এবং হয়ে উঠুন উজ্জ্বল, ফর্সা, দাগহীন ও আকর্ষণীয় ত্বকের অধিকারী।

 ধন্যবাদ

 

Leave a Comment